ArabicBengaliEnglishHindi

আমি 


প্রকাশের সময় : আগস্ট ২৩, ২০২২, ৯:৪৬ পূর্বাহ্ণ / ১২৫
আমি 

কল্পনা আলম

আমি নক্ষত্রের চোখে চোখ রেখে
পৃথিবীতে আমার অস্তিত্ব অনুভব করি।
আমি সুখী মানুষের জীবন দেখে
নিজের দুঃখগুলোকে অবলোকন করি।
আমি নিশাচর পাখির কান্না শুনে
রাতের নির্জনতার অন্ধকারকে আলিঙ্গনে বাঁধি।
আমি অভাবীর কষ্ট দেখে
নিজের সুখগুলোর অস্তিত্ব অনুভব করি।
আমি বহতা নদীর জোয়ার ভাটার রূপ দেখে
জীবনকে উপলব্ধি করতে শিখি।
আমি শুকনো পাতা ঝরে পড়া দেখে
মৃত্যুকে কাছ থেকে অবলোকন করি।
আমি মায়ের কোলে ঘুমন্ত শিশুর মুখ দেখে
বিশ্বাসের জালে আবদ্ধ হই।
আমি ঝরে পড়া শিউলির অভিমান দেখে
নিজের কষ্টগুলো অনুধাবন করতে পারি।
আমি আকাশের উদারতা দেখে
মানুষের প্রতি উদার হতে অনুপ্রাণিত হই।
আমি সমুদ্রের বিশালতা দেখে
বিশাল মনের আয়নায়
নিজের প্রতিচ্ছবি দেখতে আগ্রহী হই।
আমি চাঁদ সুর্যের নিয়মিত অবস্থান দেখে
বিষ্মিত চিত্তে প্রভুর সৃষ্টিতে হতবাক হই।
আমি আস্তাকুঁড়ে কোন ক্ষুধার্তের
ক্ষুধার জ্বালা নিভাইতে দেখে
অপরাধ বোধে নত শিরে প্রস্থান হই।
সাথীরে ডেকে পাখির নীড়ে ফেরা দেখে
আমি ভালোবেসে ঘর বাঁধতে উদ্ভুদ্ধ হই।।
আমি নরম মাটির সোঁদা গন্ধ শুকে
দেশকে ভালোবাসতে অনুপ্রাণিত হই।
ফুটন্ত ফুলের রূপ দেখে
আমি আল্লাহর সৃষ্টিতে প্রশংসিত হই।
অসুস্থ ব্যক্তির আর্তনাদ দেখে
নিজেকে সুস্থ থাকার নেয়ামতে
আমি নত শিরে প্রভুর প্রতি কৃতজ্ঞ হই।

সাহিত্য বিভাগের আরো খবর

আরও খবর