আল্লামা সাঈদীর মৃত্যুর ১০ মিনিট পর ঢাকা সহ সারাদেশে মাঝারি মাত্রার ভূমিকম্প অনুভূতি হয়


প্রকাশের সময় : আগস্ট ১৫, ২০২৩, ১২:৩১ পূর্বাহ্ণ / ২০২
আল্লামা সাঈদীর মৃত্যুর ১০ মিনিট পর ঢাকা সহ সারাদেশে মাঝারি মাত্রার  ভূমিকম্প অনুভূতি হয়

নিজস্ব প্রতিনিধঃ আল্লামা সাঈদীর মৃত্যুর ১০ মিনিট পর ঢাকা ও সিলেটসহ সারাদেশে মাঝারি মাত্রার ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে।রিখটার স্কেলে এর মাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৫। স্থায়িত্ব ছিল প্রায় ১৫ সেকেন্ড। ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল সিলেট শহর থেকে মাত্র ২৩ কিলোমিটার এবং সিলেটের কানাইঘাট থেকে মাত্র ৪ কিলোমিটার দূরে মেঘালয় রাজ্যে। তবে এতে তাৎক্ষণিকভাবে ক্ষয়ক্ষতির কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

সোমবার (১৪ আগস্ট) রাত ৮টা ৫০ মিনিটে এ ভূমিকম্প অনুভূত হয়। একই সময়ে পার্শবর্তী দেশ ভারত, নেপাল, ভুটান ও মিয়ানমারেও ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে।

ঢাকা আবহাওয়া অফিসের আবহাওয়াবিদ মুমিনুল ইসলাম জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ঢাকা থেকে ভূকম্পনটির উৎপত্তিস্থল ছিল ২৪১ কিলোমিটার দূরে।
ধানীতে ভূমিকম্প অনুভূত হলে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন বাসিন্দারা। এসময় অনেকে ভয়ে বাসার বাইরে চলে যান। ভূমিকম্প অনুভূত হওয়ায় খবরে সিলেটের বাসিন্দাদের মধ্যেও আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। তবে ক্ষয়ক্ষতির কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

ঢাকার কয়েকজন বাসিন্দার সঙ্গে আলোচনা করে   আইনের চোখ জানতে পারে জুলুম নির্যাতন এবং কারাবন্দি হাজারো আলেমকে এভাবে মৃত্যু হয়তো আল্লাহ আমাদের প্রতি নাখোশ হয়েছে,তারই মাঝে কোরআনের পাখি আল্লামা সাঈদীর ইন্তেকালের ঠিক ১০ মিনিট পরেই ভূমিকম্প অনুভূত হয়। আল্লাহ তায়ালা এই ভূমিকম্প থেকে জানিয়ে দিলো যে কুরআনের পাখি আর পৃথিবীতে বেঁচে নেই এটা বাঙালি সহ মানব জাতির জন্য একটি শিক্ষা।

ঢাকা আগারগাঁয়ের মতিন সাহেব আইনের চোখকে বলেন আল্লামা দেলোয়ার হোসেন সাঈদী মৃত্যুর সংবাদ শুনতে ছিলাম ইতিমধ্যেই আমার বহুতল ভবনটি কেঁপে ওঠে বেশ কয়েক সেকেন্ড স্থায়ী হয। বুঝতে আর বাকি রইল না আল্লামা সাঈদীর মৃত্যুর পরে আল্লাহ বাঙালি জাতির পর গজব নাযিল করল। কিছুটা ভয় পেয়েছিলাম আল্লামা সাঈদীর মৃত্যুর কারণে এই ভূমিকম্প নয়তো। মুহূর্তেই মনটা খারাপ হয়ে যায় তবে কোনো ধরনের ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।পরবর্তীতে আল্লাহর কাছে অসংখ্য শুকরিয়া আদায় করি। আল্লাহ আমাদের প্রতি রহমত নাযিল করেছেন।

সিলেট নগরীর মোঃ আব্দুর রহিম  আইনের চোখকে জানান, ভূমিকম্পে তাদের বহুতল ভবনটি কেঁপে ওঠে।না  বেশ কয়েক সেকেন্ড স্থায়ী ছিল। তবে কোনো ধরনের ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ তরিফুল নেওয়াজ কবির আইনের চোখকে  বলেন, ‌রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৫। মাঝারি মাত্রার এ ভূমিকম্পের উৎসস্থল ছিল রাজধানীর আগারগাঁওয়ের ভূমিকম্প পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র থেকে ২২৮ কিলোমিটার দূরে ভারতের মেঘালয় রাজ্যে।