ArabicBengaliEnglishHindi

সৈয়দপুর ১৩শত পিচ টাপেন্টাডল সহ দুই যুবক গ্রেফতার


admin প্রকাশের সময় : জুন ১, ২০২২, ১:৫৮ অপরাহ্ণ / ৫৮
সৈয়দপুর ১৩শত পিচ টাপেন্টাডল সহ দুই যুবক গ্রেফতার
সৈয়দপুরে নিষিদ্ধ ঘোষিত এক হাজার তিন শ’ ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেটসহ দুই জন যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গত ৩১ মে বেলা শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কের (রংপুর রোড) বাঙ্গালীপুর এলাকার জান্নাত হোটেলের সামনে এক মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়ে উল্লিখিত সংখ্যক ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেট উদ্ধার ও দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব -১৩, রংপুর, সিপিসি-২ নীলফামারী ক্যাম্পের সদস্যরা।
 গ্রেপ্তারকৃতরা হচ্ছে, শহরের মিস্ত্রিপাড়ার জয়নাল আবেদীনের ছেলে খাইরুল ইসলাম রানা (২১) এবং নতুন বাবুপাড়ার রতন সরকারের ছেলে ওমর ফারুক চঞ্চল (২২)। এ ঘটনায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে সৈয়দপুর থানায় একটি মামলা হয়েছে।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, ঘটনার দিন গত মঙ্গলবার (৩১ মে) বেলা দিকে গোপন সূত্রে প্রাপ্ত খবরের ভিত্তিতে র‌্যাব -১৩, রংপুর, সিপিসি-২ নীলফামারী ক্যাম্পের ডিএডি (জেসিও) মো. শফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে র‌্যাব সদস্যরা সৈয়দপুর শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কের বাঙ্গালীপুর এলাকায় এক অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানকালে উল্লিখিত এলাকার জান্নাত হোটেলের সামনে পাকা সড়কের ওপর থেকে খাইরুল ইসলাম রানা (২১) এবং ওমর ফারুক চঞ্চল (২২) দুই যুবককে আটক করে। পরে তাদের সঙ্গে থাকা ব্যাগ তল্লাশি করে এক হাজার তিন শ’ পিস নিষিদ্ধ ঘোষিত ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় তাদের কাছ থেকে ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেট বিক্রির নগদ এক হাজার পাঁচ শ’ টাকা এবং ব্যবহৃত তিনটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। এ ঘটনায় র‌্যাব -১৩, রংপুর, সিপিসি-২ নীলফামারী ক্যাম্পের ডিএডি (জেসিও) মো. শফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য আইনে সৈয়দপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরে উদ্ধারকৃত ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেট, জব্দকৃত নগদ টাকা ও মোবাইল ফোনসহ গ্রেপ্তারকৃত সৈয়দপুর থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে।
সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আবুল হাসনাত খান র‌্যাবের অভিযানে ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেটসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, গ্রেপ্তারকৃত আদালতের মাধ্যমে নীলফামারী কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এ বন্যায় যতটুকু ক্ষতি হবে, সেটা পুষিয়ে নেওয়া সম্ভব হবে— কৃষিমন্ত্রী। এই কথায় আপনিকি একমত?

View Results

Loading ... Loading ...