ArabicBengaliEnglishHindi

সরকারের এখন থেকে প্রস্তুতি নেওয়া দরকার: জাতীয় পার্টি


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ২৬, ২০২২, ৫:১০ অপরাহ্ণ / ৩০
সরকারের এখন থেকে প্রস্তুতি নেওয়া দরকার: জাতীয় পার্টি

নিজস্ব প্রতিনিধি:- জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সংসদের বিরোধীদলীয় উপনেতা জিএম কাদের বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী কিছু দিন আগেও বলেছেন খাদ্য সংকটের মাধ্যমে দেশে দুর্ভিক্ষ হতে পারে। এটা মোকাবিলায় সরকারের এখন থেকে প্রস্তুতি নেওয়া দরকার।’

‘মহার্ঘ্য ভাতা প্রদান ছাড়াও ন্যায্যমূল্যে জনগণকে নিত্যপ্রয়োজনীয় পৌঁছে দেওয়াটার দাবি আমরা করছি। আমরা আগেই অর্থ সংকটসহ দুর্ভিক্ষ হওয়ার মতো পরিস্থিতির আভাস পেয়েছি। সরকারের উচিত বড় বড় মেগা প্রজেক্টসহ অপ্রয়োজনীয় যেসব প্রজেক্ট আছে, সেগুলো চালু না রেখে বন্ধ করা।’

মঙ্গলবার দুপুরে রংপুর নগরীর দর্শনার পল্লী নিবাসে পার্টির প্রতিষ্ঠাতা ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি এইচএম এরশাদের কবর জিয়ারত শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় দলের মহাসচিব মজিবুল হক চুন্নুসহ কেন্দ্রীয় ও বিভাগীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এরপর জিএম কাদের রংপুর পাবলিক লাইব্রেরি মাঠে রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টির সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন।

জিএম কাদের আরও বলেন, ‘অর্থনৈতিক খারাপ প্রভাব যেভাবে সাধারণ মানুষের ওপর পড়ছে, তাতে ব্যয় বেড়েই চলছে। এভাবে চলতে থাকলে সাধারণ মানুষের জীবনযাপন, ব্যয় নির্বাহ করা অসম্ভব হয়ে পড়বে। আর দুর্ভিক্ষ দেখা দিলে দেশে বিপর্যয় সৃষ্টি হতে পারে।’

নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমরা দ্রব্যের দাম বেশি নিয়ে কথা বলছি। জনগণ যেন জীবিকা নির্বাহ করতে পারে, সে মহার্ঘ্য ভাতা দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিলাম। সাধারণ মানুষের সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিতে রেশন কার্ডের মাধ্যমে বা অন্য কোনোভাবে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রী সরকার দিতে পারে সে দাবি জানিয়ে আসছি।’

এ সময় জাতীয় পার্টির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু এমপি, কো-চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এমপি, অতিরিক্ত মহাসচিব ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি, ভাইস চেয়ারম্যান আদেলুর রহমান আদেল এমপি, রংপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র ও রংপুর মহানগরের সভাপতি মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক এসএম ইয়াসির, জেলার আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল মাসুদ চৌধুরী নান্টু, সদস্য সচিব হাজী আব্দুর রাজ্জাকসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এতে মহানগরীর ওয়ার্ড ও বিভিন্ন থানা এলাকার বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীরা খণ্ড খণ্ড মিছিলে সম্মেলনে যোগদান করেন।

%d bloggers like this: