ArabicBengaliEnglishHindi

পঞ্চগড়ে ১৫ বছরের সন্তান রেখে শুকুরুর সাথে পালালো শান্তবালা(৩৪)


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ২০, ২০২২, ৯:২২ অপরাহ্ণ / ৬৩
পঞ্চগড়ে ১৫ বছরের সন্তান রেখে শুকুরুর সাথে পালালো শান্তবালা(৩৪)

মোঃ মোমিন ইসলাম সরকার দেবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ– পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার ৩নং ব্যাংহাড়ী ইউনিয়নের গাংটিটি পাড়া গ্রামের গবিন্দ্রনাথ চন্দ্র বর্মন এর স্ত্রী শান্তবালা একই ইউনিয়নের তেপুকুরিয়ার গুঞ্জর পাড়ার শুকুরু বর্মন বাসায় নিয়ে যায়।

গত (১৩ অক্টোবর) ইং বৃহস্পতিবার বিকাল পাঁচ ঘটিকায় শান্তবালা স্বামী গবিন্দ্রনাথ বর্মন ময়দানদিঘী কাপড় কেনার কথা বলে বাসা থেকে বের হয়,কিন্ত আর বাসায় ফিরে আসেননী। ইতি মধ্যে রাত ৮ ঘটিকায় স্থানীয় মেম্বার গোপাল চন্দ্র বর্মন গবিন্দ্রনাথ চন্দ্র বর্মনকে বাসায় গিয়ে বলে আপনার বউ গুঞ্জর পাড়া শুকুরু বর্মনের বাসায় অবস্থান করতেছে। গবিন্দ্রনাথ চন্দ্র বর্মন জানান,বিথী রাণী (১৫) প্রসেনজিৎ (০৮) আমার দুটি সন্তান রয়েছে। গবিন্দ্রনাথ আরও বলেন এক মাস আগে আমার একটি গরু বিক্রি করেছে, আমার বাশঁ বাগান থেকে সব বাশঁ বিক্রি করেছে,আমার সত্তোর হাজার টাকা নিয়ে শুকুরুর সাথে পালিয়েছে শান্তবালা।

এর মধ্যে ১৫ তারিখ রাত ৮ঘটিকায় শান্তবালাকে স্থানীয় দুই মেম্বার গোপাল চন্দ্র বর্মন, কাব্য ভূষন বর্মন ও ইউপি চেয়ারম্যান স্থানীয় লোকজন গবিন্দ্রনাথ এর বাসায় পৌছায় দেয়। পরের দিন ১৬ তারিখ বিকাল ৩ঘটিকায় শান্তবালা আবার শুকুরুর বাসায় চলে যায়।তদন্ত সুত্রে জানা গেছে, শুকুরু বর্মন(৪০) পিতা: পরিতোষ বর্মন, এর একটি ছেলে ও মেয়ে আছে। প্রথম স্ত্রী রঞ্জনা রাণী সাং- সরকার পাড়া জানিয়েছে, আমার শাশুড়ী, ছোট ভাইয়ের বউ ও শুকুরু প্রতিনিয়ত আমাকে নির্যাতন করে। আমার এক ছেলে শ্রী সাগর বর্মন (১০)মেয়ে সত্তোমি রাণী (০৭) দুই সন্তান কে নিয়ে আমার বাপের বাড়ি চলে আসি।আমার অনুমতি না নিয়ে শান্তবালাকে বিয়ে করেছে সুকুরু,আমি এখন এই দুই সন্তান নিয়ে নিরুপায়। আমি কিভাবে চলবো, আমি কিছুতেই বিষয়টি মেনে নেব না। আমি সংবাদ মাধ্যমে বিষয়টি প্রশাসনের কাছে বিচার চাচ্ছি। আমি আইনীপ্রক্রিয়া বিচার চাই

%d bloggers like this: