ArabicBengaliEnglishHindi

কুড়িগ্রাম পৌরসভার বকেয়া বিদ্যুৎ বিল সাড়ে ৪ কোটি


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ২১, ২০২২, ৬:২৪ অপরাহ্ণ / ৪৩
কুড়িগ্রাম পৌরসভার বকেয়া বিদ্যুৎ বিল সাড়ে ৪ কোটি

জেলা প্রতিনিধি: কুড়িগ্রাম কয়েক বছর ধরে নিয়মিত কুড়িগ্রাম পৌরসভার বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করছে না কর্তৃপক্ষ। ফলে সাড়ে চার কোটিরও বেশি টাকা বকেয়া বিল আছে বলে জানিয়েছে নর্দার্ন ইলেক্ট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি (নেসকো)।

নেসকোর তথ্য অনুযায়ী, কুড়িগ্রাম পৌরসভার মোট বকেয়া বিদ্যুৎ বিল ৪ কোটি ৫৯ লাখ টাকা। এর মধ্যে পানি শোধনাগারের বিদ্যুৎ বিল বকেয়া পড়েছে ৭০ লাখ টাকার ওপরে।

কুড়িগ্রাম পৌরসভা সূত্রে জানা যায়, পৌরসভায় যে রাজস্ব আয় হয় তা দিয়ে কর্মচারীদের বেতন দেওয়ার পর অবশিষ্ট কিছুই থাকে না। এছাড়া সব খাত থেকে রাজস্ব আদায় ঠিকমত হয় না। পৌরসভার অধীনে হাট বাজার দোকানপাট থেকে নিয়মিত ভাড়া আদায় হচ্ছে না। ফলে নিয়মিত বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে হিমশিম খেতে হচ্ছে।

কুড়িগ্রাম পৌরসভার পানি পরিশোধনাগার, বাসস্ট্যান্ড, সড়ক বাতি ও পৌর অডিটোরিয়ামের মোট ২২ টি হিসাব নম্বর থাকলেও সেগুলো হতে নিয়মিত বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করা হয় না।

পৌরসভার বকেয়া বিদ্যুৎ বিলের বিষয়ে জানতে চাইলে নেসকোর কুড়িগ্রামের নির্বাহী প্রকৌশলী আলিমুল ইসলাম সেলিম বলেন, কুড়িগ্রামের প্রায় সব সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানগুলো গত জুন মাসে তাদের বকেয়া বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করেছে। কিন্তু কুড়িগ্রাম পৌরসভার বিপুল পরিমাণ বিল বকেয়া রয়েছে যা সাড়ে চার কোটি ৫৯ লাখ টাকার উপরে।গত ২০১৯_২০২০ অর্থ বছরে জুন মাসে ১০ লাখ টাকা বিল পরিশোধ করলেও অবশিষ্ট বিল এখনো বকেয়া আছে।

তিনি আরও বলেন, প্রতি মাসে নিয়মিতভাবে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের চিঠি পৌর সভা বরাবর দেয়া হলেও নিয়মিত বিল পরিশোধের বিষয়টি পরিলক্ষিত হচ্ছে না।

কুড়িগ্রাম পৌর সভার নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম মাজাহারুল আনোয়ার বলেন, ‘আমি নতুন এসেছি। পৌর সভার অন্তর্ভুক্ত বিগত মিটার ছিল নষ্ট ও অকেজো। আমরা নতুন মিটার স্থাপন করেছি। বিদ্যুৎ বিল শিট ও মিটার রিডিং দেখছি। আগের তুলনায় বর্তমান বিদ্যুৎ বিল সঠিক আসছে। গত মেয়রের সময় ২ কোটি টাকার ওপরে বিল বকেয়া ছিল। আমরা চেষ্টা করছি এখন থেকে নিয়মিত বিল পরিশোধের।

%d bloggers like this: