ArabicBengaliEnglishHindi

যাত্রা করলো আরব আমিরাতের চন্দ্রযান ‘রশিদ’


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১১, ২০২২, ৬:০৭ অপরাহ্ণ / ২৮
যাত্রা করলো আরব আমিরাতের চন্দ্রযান ‘রশিদ’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:-  চাঁদের উদ্দেশে যাত্রা করেছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) চন্দ্রযান ‘রশিদ’। রোববার (১১ ডিসেম্বর) এ যাত্রার মাধ্যমে দেশটির দীর্ঘমেয়াদী চন্দ্র অনুসন্ধান কর্মসূচির ঐতিহাসিক সূচনা হলো।

আরব আমিরাতের সংবাদমাধ্যম দ্য ন্যাশনাল নিউজ এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদনে প্রকাশ করে। এতে বলা হয়, রশিদের যাত্রা শুরুর সময় দুবাইয়ের ভাইস প্রেসিডেন্ট ও শাসক শেখ মোহাম্মাদ বিন রশিদ এবং ক্রাউন প্রিন্স শেখ হামদান বিন মোহাম্মদ ইউএইর মহাকাশ সংস্থার কন্ট্রোল রুমে ছিলেন।

খবরে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার ক্যাপ ক্যানাভেরালের মহাকাশ কেন্দ্র থেকে স্পেসএক্স ফ্যালকন ৯ রকেটের মাধ্যমে রশিদ রোভারকে চাঁদে পৌঁছে দিতে যাত্রা শুরু করে। ছোট এ যানটি জাপানের তৈরি মুন ল্যান্ডার হাকুতু-আর মিশনের ১’র দিকে যাচ্ছে। জাপানের মুন ল্যান্ডারটির মাধ্যমে আরব আমিরাতের চন্দ্রযানটি আগামী পাঁচ মাসের মধ্যে চন্দ্রপৃষ্ঠে অবতরণ করবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মার্কিন স্পেস ফোর্স পরিচালিত লঞ্চ সাইট কমপ্লেক্সের একটি প্যাড থেকে ফ্যালকন ৯ রকেটের মাধ্যমে রোববার বেলা ১১টা ৪০ মিনিটে যাত্রা শুরু করে রশিদ রোভার। ইসপেসের ল্যান্ডারটি রকেট থেকে লিফট-অফের প্রায় ৩৫ মিনিট পরে আলাদা হয়, পরে চাঁদে তার একক যাত্রা শুরু করে। হাকুটো-আর মিশন ১ ল্যান্ডারটি জ্বালানি সাশ্রয় ও খরচ কমাতে দীর্ঘ পথ পাড়ি দেবে। চাঁদের কাছাকাছি যেতে এটি সূর্যের মাধ্যাকর্ষণ সহায়তা ব্যবহার করবে।

আরব আমিরাতের মহাকাশ কেন্দ্র সংস্থা মোহাম্মদ বিন রশিদ স্পেস সেন্টারের মহাপরিচালক সালেম আল মারি ঐতিহাসিক এ ক্ষণ নিয়ে বলেন, কঠিন একটি যাত্রা শুরু হলো। চাঁদে যাওয়ার পথটাও কঠিন। তবে স্পেসএক্স’র ওপর আমাদের আস্থা আছে। আশা করি সবকিছুই ঠিকঠাক মতো সম্পন্ন হবে।

দুবাই শাসক শেখ মোহাম্মাদ বিন রশিদ টুইটারে লিখেছেন, চাঁদে পৌঁছানো একটি দেশ ও জাতির উচ্চাকাঙ্ক্ষার যাত্রার আরেকটি মাইলফলক। রশিদ রোভার সংযুক্ত আরব আমিরাতের উচ্চাভিলাষী মহাকাশ কর্মসূচির অংশ। এর মাধ্যমে আমাদের জ্ঞান আহরণ, ক্ষমতা বিকাশের বৈজ্ঞানিক পদচিহ্ন যোগ হলো।

সূত্র: দ্য ন্যাশনাল নিউজ

%d bloggers like this: