ArabicBengaliEnglishHindi

ভারতের সঙ্গে বাণিজ্য বৃদ্ধি ১১০০ কোটি টাকায় রামগড় স্থলবন্দর পর্যন্ত সড়ক উন্নয়ন


প্রকাশের সময় : নভেম্বর ১৬, ২০২২, ৮:২২ অপরাহ্ণ / ২১
ভারতের সঙ্গে বাণিজ্য বৃদ্ধি  ১১০০ কোটি টাকায় রামগড় স্থলবন্দর পর্যন্ত সড়ক উন্নয়ন

নিজস্ব প্রতিবেদক:- বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি, ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণ করাসহ উন্নয়নের নানা দিক বিবেচনা করে রামগড় স্থলবন্দর পর্যন্ত সড়ক উন্নয়ন করবে সরকার। একই সঙ্গে প্রকল্প এলাকার জনগণের আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নয়ন করা হবে।

এই ‘বারৈয়ারহাট-হেঁয়াকো-রামগড় সড়ক প্রশস্তকরণ (১ম সংশোধিত)’ প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে সড়ক ও জনপথ (সওজ) অধিদপ্তর।

প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ১ হাজার ১০৭ কোটি ১২ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারি অর্থায়ন ৫১৩ কোটি টাকা এবং ভারতীয় ঋণ ৫৯৪ কোটি টাকা। চলমান প্রকল্পটি ২০২২ সালের ডিসেম্বর শেষ হবে।

প্রকল্প এলাকা: চট্টগ্রাম জেলার মিরসরাই এবং খাগড়াছড়ি জেলার রামগড় উপজেলা।

প্রকল্পের উদ্দেশ্য: বারৈয়ারহাট-হেঁয়াকো-রামগড় সড়ক উন্নয়নের মাধ্যমে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি, ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণ করাসহ প্রকল্প এলাকার জনগণের আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নয়ন করা।

প্রকল্পের প্রধান কার্যক্রম: ক্ষতিপূরণসহ ৬৮ দশমিক ৬১ হেক্টর ভূমি অধিগ্রহণ, কাস্টমস ডিউটি (সিডি), সড়কবাঁধে ১৩ দশমিক ৯৫ লাখ ঘনমিটার মাটির কাজ, ২২ দশমিক ৬৪ কিলোমিটার বিদ্যমান পেভমেন্ট প্রশস্তকরণ ও মজবুতিকরণ। এছাড়া সাড়ে ১৩ কিলোমিটার বিদ্যমান পেভমেন্ট উচুঁকরণ, ৩৬ দশমিক ১৪ কিলোমিটার হার্ড শোল্ডার নির্মাণ, ৩৬ কিলোমিটার সার্ফেসিং (ডিবিএস), ৯টি পিসি গার্ডার ব্রিজ নির্মাণ এবং ১০৮ মিটার ২৩টি আরসিসি বক্স কালভার্ট নির্মাণ।

এ বিষয়ে পরিকল্পনা বিভাগের সচিব মো. মামুন আল রশীদ বলেন, প্রকল্পের আওতায় বারৈয়ারহাট হতে রামগড় পর্যন্ত ৩৮ কিলোমিটার সড়ক প্রশস্তকরণের মাধ্যমে চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর ও রামগড় স্থলবন্দরের মধ্যে যোগাযোগ স্থাপন করা হবে। বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণসহ উন্নত, নিরাপদ ও ব্যয় সাশ্রয়ী যোগাযোগ নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে প্রকল্পটি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

%d bloggers like this: