ArabicBengaliEnglishHindi

বগুড়ার হাসপাতাল থেকে চুরি যাওয়া নবজাতক গাজীপুরে উদ্ধার


প্রকাশের সময় : নভেম্বর ১৪, ২০২২, ৬:০৪ অপরাহ্ণ / ২২
বগুড়ার হাসপাতাল থেকে চুরি যাওয়া নবজাতক গাজীপুরে উদ্ধার

বগুড়া নিজস্ব প্রতিবেদক :- বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল থেকে চুরি যাওয়া নবজাতককে চারদিন পর গাজীপুর থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার (১৩ নভেম্বর) সন্ধ্যায় গাজীপুরের চন্দ্রা এলাকা থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়।

তবে এ ঘটনায় জড়িত কাউকে এখনো গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। সোমবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূরে আলম।

তিনি জানান, রোববার দুপুরের দিকে গাজীপুরের চন্দ্রা বাজার এলাকায় রাস্তার পাশে এক নবজাতকের সন্ধান পায় স্থানীয়রা। পরে সেখানকার পুলিশ বগুড়া সদর থানায় জানায়। খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশ নবজাতকের বাবা সৈকত হাসান এবং মা ইতি বেগমকে নিয়ে সেখানে রওয়ানা হন। সেখানে গিয়ে তারা চুরি যাওয়া তাদের সন্তানকে শনাক্ত করেন। পরে নবজাতককে উদ্ধার করে বগুড়ায় আনা হয়।

গত ৯ নভেম্বর দুপুরে শজিমেক হাসপাতালের গাইনি বিভাগ থেকে থেকে চারদিনের নবজাতক চুরির ঘটনা ঘটে। চুরি হয়ে যাওয়া ওই নবজাতকের মা ইতি বেগম (২৩) সদর উপজেলার এরুলিয়া বানদিঘী এলাকার সৈকত হাসানের স্ত্রী।

নবজাতকের বাবা সৈকত হাসান জানান, গত ৫ নভেম্বর সন্ধ্যার দিকে তার স্ত্রী ইতি বেগম প্রসবব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। পরের দিন ছেলে সন্তানের জন্ম দেন তিনি। তিনদিন পর বুধবার দুপুরে তাদেরকে রিলিজ দেওয়া হয়। রিলিজ দেওয়ার পর ইতি তার বোন নবজাতককে নিয়ে হাসপাতাল থেকে বের হওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এসময় অজ্ঞাতপরিচয় এক নারী সরকারিভাবে তাদের পাঁচ হাজার টাকা সহায়তার আশ্বাস দেন। সেই আশ্বাসে তার স্ত্রীর বোন নবজাতককে নিয়ে হাসপাতালের নিচে যান। সহায়তা পেতে কিছু কাগজ ফটোকপি করতে হবে- এই কথা বলে তাকে দোকানে পাঠান ওই নারী। তিনি দোকানে গেলে নবজাতককে নিয়ে সটকে পড়েন তিনি।

বগুড়া জেলা পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরাফত ইসলাম বলেন, শজিমেক হাসপাতাল থেকে চুরি যাওয়া নবজাতককে উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় এখনো কাউকে আটক বা গ্রেফতার করা যায়নি। আমরা তদন্ত অব্যাহত রেখেছি। এর সঙ্গে জড়িতরা অচিরেই ধরা পড়বে।

%d bloggers like this: