ArabicBengaliEnglishHindi

কোনো দেশ ষড়যন্ত্র করলে প্রতিবাদও করতে জানি: প্রধানমন্ত্রী


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১৮, ২০২২, ৭:৩৮ অপরাহ্ণ / ২৯
কোনো দেশ ষড়যন্ত্র করলে প্রতিবাদও করতে জানি: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক:-   কোনো দেশ সহযোগিতা করলে বাংলাদেশ যেমন তার স্বীকৃতি দেয়, সম্মান করে তেমনি ষড়যন্ত্র করলে তার প্রতিবাদও করতে জানে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে রোববার (১৮ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানীর খামারবাড়ির কৃষিবিদ ইনিস্টিটিউটে আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের জন্য এতটুকু কেউ কিছু করলে আমরা সেটা স্বীকার করি। আবার কেউ আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করলে আমরা তার প্রতিবাদও করতে জানি।

তিনি বলেন, আমাদের বন্ধুপ্রতিম যত দেশ এবং যেসব দেশ আমাদের সমর্থন জানিয়েছে সব বিদেশিদের কিন্তু আমরা সম্মাননা দিয়েছি। আমার মনে হয় পৃথিবীর কোনো দেশ তাদের যারা সংগ্রামের সময় বা যুদ্ধের সময় সহযোগিতা করে বা মিত্র শক্তিকে এভাবে সম্মান দেয় না। কিন্তু বাংলাদেশ তাদের সম্মাননা দিয়েছে।

মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় বিভিন্ন দেশের সহযোগিতার কথা স্মরণ করে শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে যারা আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন, শরণার্থীদের আশ্রয় দিয়েছে, খাদ্য দিয়েছে, মুক্তিযোদ্ধাদের ট্রেনিং দিয়েছে, অস্ত্র দিয়ে সহযোগিতা করেছে, আমাদের মুক্তিযুদ্ধের সময়ে যাদের সৈনিকরা আমাদের মুক্তিযোদ্ধাদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে অকাতরে জীবন দিয়েছে, সে ভারত এবং অন্যান্য সহযোগী দেশগুলোর প্রতি আমরা কৃতজ্ঞতা জানাই, আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই পাশে দাঁড়ানোর জন্য।

তিনি বলেন, ভারত সরকার, ভারতের জনগণ, তারা সব সময় আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছিল। সে সঙ্গে অন্যান্য দেশগুলো, রাশিয়া, যুগোস্লাভিয়াসহ বিভিন্ন দেশ এমনকি পশ্চিমা দেশগুলোতেও কোনো কোনো সরকার সমর্থন না দিলেও তাদের জনগণ আমাদের সমর্থন দিয়েছে। এমনকি আমেরিকার সরকার পাকিস্তানিদের সহযোগিতা করলেও আমেরিকার জনগণ কিন্তু আমাদের পাশে ছিল। আমাদের সহযোগিতা করেছিল।

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ ও উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলামের যৌথ সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য আমির হোসেন আমু, সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ হোসেন, শাজাহান খান, জাহাঙ্গীর কবির নানক, মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, সিমিন হোসেন রিমি ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ।

সূচনা বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

%d bloggers like this: