ArabicBengaliEnglishHindi

এতিমের টাকা খালেদার অ্যাকাউন্টে কেন, প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১৪, ২০২২, ৬:১৯ অপরাহ্ণ / ২৪
এতিমের টাকা খালেদার অ্যাকাউন্টে কেন, প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক:-   এতিমের টাকা খালেদা জিয়ার অ্যাকাউন্টে থাকে কেন, এমন প্রশ্ন করেছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, ‘বিএনপি নেতারা বলেন খালেদা জিয়া নাকি আত্মসাৎ করেনি। এতিমের জন্য টাকা দিয়েছে, সেই টাকা তার অ্যাকাউন্টে থাকে কেন?’

মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এতিমের টাকা আত্মসাৎ করলে বিচার হবে, সেটা তো কোরআনেও আছে। যে মামলায় বিচার হয়েছে। সেটাও কিন্তু আমরা দেইনি। তাদেরই প্রিয় মঈনউদ্দিন-ফখরুদ্দিন দিয়েছেন। ৯ জন জেনারেলকে ডিঙিয়ে তাকে (মঈনউদ্দিন) সেনাপ্রধান করেছেন তারা।’

আমেরিকা ও কানাডা খুনিদের মানবাধিকার রক্ষায় ব্যস্ত দাবি করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘জাতির জনকের সাজাপ্রাপ্ত খুনিদের ফেরতে দিতে বলি, তারা দেয় না। মানবাধিকার লঙ্ঘনকারীর মানবাধিকার রক্ষা করছে তারা।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আওয়ামী লীগ বাংলাদেশের মানবাধিকার লঙ্ঘন করে না, সুরক্ষা দেয়। মানবাধিকার নিশ্চিত করে। শুধু বেঁচে থাকাই তো সুরক্ষা না। খাদ্যশস্য উৎপাদন করছি। মানুষকে বিনা পয়সায় খাবার দিচ্ছি। করোনায় বিনা পয়সায় ভ্যাকসিন দিয়েছি। স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছি।’

গুম-খুন নিয়ে সমালোচনার জবাবে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, ‘বিএনপির অনেকে গুম-‍খুন নিয়ে কথা বলেন। আরে এদেশে গুম-খুনের কালচার তো শুরু করেছে জিয়াউর রহমান। আমাদের শত শত নেতাকর্মীকে গুম করেছে। ফাঁসি দেওয়ার সংস্কৃতিও তার। একদিনে দশজনকে ফাঁসি দিয়েছে। হাজার হাজার মা-বোন ও ভাইয়ের কান্না শোনা যায়। কত মানুষকে জিয়াউর রহমান হত্যা করেছে। এক বিমান বাহিনীর ৫৬২ জন, সেনাবাহিনীর দুই হাজার অফিসার ও সৈনিক। সেই পরিবারগুলো আজও তাদের আপনজনের জন্য কেঁদে ফেরে। কই, মরদেহের খবরটাও তো পায়নি। এরপর কোন মুখে বিএনপি গুম-খুন নিয়ে কথা বলে?’

তিনি বলেন, ‘তারা জাতির জনকের খুনিদের দূতাবাসে চাকরি দিয়েছে। তখন মানবাধিকার লঙ্ঘন হয়নি? জঙ্গি, মাদক ব্যবসায়ী কারা মারা গেছে, সেটা নিয়ে ব্যস্ত তারা। আজকে বুদ্ধিজীবী দিবস আমরা পালন করি। বিএনপির কী কোনো কর্মসূচি আছে? সেটাতে কী বুঝা যায়?’

আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম, ড. আব্দুর রাজ্জাক, আব্দুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আফজাল হোসেন, স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা প্রমুখ।

সভা সঞ্চালনা করেন প্রচার সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ ও উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম।

%d bloggers like this: