ArabicBengaliEnglishHindi

১৫ গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ সেতু ভেঙে


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ২০, ২০২২, ৪:৪০ অপরাহ্ণ / ২৭
১৫ গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ সেতু ভেঙে

কলমাকান্দা (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি:- নেত্রকোনার কলমাকান্দা উপজেলার গুতুরা গুরুস্থান থেকে আমবাড়ি বাজার সড়কের কৃষ্টপুর গ্রামে খালের ওপর নির্মিত সেতুটি ভেঙে পড়ায় দুর্ভোগ পোহাচ্ছে ১৫ গ্রামের প্রায় ৩০ হাজার মানুষ। তিন বছর ধরে তারা ঝুঁকি নিয়ে এ খাল পারাপার হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানান, ২০০১ সালে উপজেলার গুতুরা গুরুস্থান থেকে আমবাড়ি সড়কের কৃষ্টপুর গ্রামে খালের ওপর সেতুটি নির্মাণ করা হয়। এর দৈর্ঘ্য ৩০ মিটার ও প্রস্থ ৫ মিটার। ২০১৯ সালে সেতুটিতে ছোট একটি গর্তেরও সৃষ্টি হয়। পরে পর্যায়ক্রমে তা বড় হতে থাকে। গত বছর সেতুটি সম্পূর্ণ মাটিতে দেবে যায়। এর পর থেকেই শুরু হয় চরম দুর্ভোগ।

কিছু দিন পর স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সেতুটির দুই পাশে বাঁশ দিয়ে ওপরে মাটি দিয়ে চলাচলের উপযুক্ত করে তুলেন। কিন্তু গত বন্যার পানিতে আবারও সব ভেঙে নিয়ে যায়। এর পর থেকে ওই সড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে মোটরসাইকেল ও রিকশা ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে।   সরেজমিন দেখা যায়, সেতুটি ভেঙে পানিতে পড়ে রয়েছে। তার ওপরে কিছু মাটি দেওয়া আছে। গ্রামের লোকজন পায়ে হেঁটে ওই খাল পারাপার হচ্ছে। এমন দুর্ভোগে পড়েছেন পলাশহাটি, মূলগাঁও, পোগলা, মৌজে পোগলা, কৃষ্টপুর, রামনাথপুর, আমবাড়ি, শুনই, মনকান্দিয়া, গঙ্গানগর, ভাটিপাড়া, পাঠানপাড়া, ধীতপুরসহ ১৫ গ্রামের লোকজন।

এ বিষয়ে কলমাকান্দা উপজেলা প্রকৌশলী শুভ্রদেব চক্রবর্তী বলেন, ওই সেতুর স্থলে নতুন করে আরেকটি সেতু তৈরির জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বরাবরে প্রস্তাবনা পাঠানো হয়েছে। ওই প্রস্তাবটা অনুমোদন হলে সেতু নির্মাণের কাজ শুরু করা হবে।

%d bloggers like this: