ArabicBengaliEnglishHindi

সুন্দরবনে বাঘ শুমারি শুরু হতে যাচ্ছে


প্রকাশের সময় : জানুয়ারি ১, ২০২৩, ৮:২৫ অপরাহ্ণ / ১৬
সুন্দরবনে বাঘ শুমারি শুরু হতে যাচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক খুলনা:- সুন্দরবনে ক্যামেরা ট্র্যাপিং পদ্ধতিতে বাঘ শুমারি শুরু হয়েছে। বাঘের হালনাগাদ তথ্য সংগ্রহ ও সংরক্ষণের জন্য পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের অধিনে এ প্রকল্প চলবে ২০২৫ সালের জুন পর্যন্ত।

রোববার (১ জানুয়ারি) বিকালে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার সুন্দরবন পশ্চিম বন বিভাগের কালাবগি ফরেস্ট অফিস এলাকায় ক্যামেরা ট্র্যাপিংয়ের মাধ্যমে এ শুমারির উদ্বোধন করেন। এ প্রকল্পের জন্য মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৩৫ কোটি ৯৩ লাখ ৮০ হাজার টাকা। এর মধ্যে শুধুমাত্র বাঘ শুমারিতে ব্যয় ধরা হয় ৩ কোটি ২১ লাখ টাকা।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের প্রফেসর ড. এম এ আজিজ, সুন্দরবন বাঘ সংরক্ষণ প্রকল্পের পরিচালক ও সুন্দরবন পশ্চিম বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা ড. আবু নাসের মোহসিন হোসেন।

এসময় উপমন্ত্রী বলেন, ৬৬৫ গ্রিডে ক্যামেরা স্থাপনের করা হবে। প্রতিটি গ্রিডের দুই পাশে দুটি ক্যামেরা থাকবে। এমনভাবে ক্যামেরা স্থাপন করা হচ্ছে, বাঘ বা যেকোনো পশু গেলে সেসময় ছবি উঠবে। শুধু ছবিই না, স্থান, কাল ও টেম্পারেচারও উঠবে। একটি প্রাণী যখন পার হবে, সবকিছু একইসঙ্গে উঠে যাবে, এমনকি ১০ সেকেন্ডের ভিডিও ধারণ হবে। ৪০ দিন একই জায়গায় এই ক্যামেরা থাকবে। ১৫ দিন পর পর ক্যামেরা চেক করা হবে।

সুন্দরবন বাঘ সংরক্ষণ প্রকল্পের পরিচালক ও সুন্দরবন পশ্চিম বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা ড. আবু নাসের মোহসিন হোসেন বলেন, সুন্দরবনের মোট ৬৬৫ স্পটে ক্যামেরা বসানো হবে। এরমধ্যে সাতক্ষীরা রেঞ্জে ২০০, খুলনা রেঞ্জে ১৪০, শরণখোলা রেঞ্জে ১৮০, চাঁদপাই রেঞ্জে ১৪৫টি ক্যামেরা থাকবে। প্রতিটি গ্রিডে একজোড়া ক্যামেরা বসানো হবে।

%d bloggers like this: