শুক্রবার রাতে ফ্লাইট নিউজিল্যান্ড যাচ্ছে সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ


প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২, ৮:১১ অপরাহ্ণ / ১২০
শুক্রবার রাতে ফ্লাইট নিউজিল্যান্ড যাচ্ছে সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক:- দেখতে দেখতে এসে গেলো টাইগারদের নিউজিল্যান্ড যাওয়ার দিনক্ষণ। আর মাত্র ২৪ ঘণ্টা পরই ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্ট খেলতে নিউজিল্যান্ড যাত্রা করবেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সদস্যরা।

শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টায় নিউজিল্যান্ডগামী ফ্লাইট টিম বাংলাদেশের। আগেই জানা, ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (সিপিএল) খেলে সরাসরি নিউজিল্যান্ডে জাতীয় দলের সঙ্গে যোগ দেবেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, অধিনায়ক সাকিব ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেকে সরাসরি নিউজিল্যান্ড চলে যাবেন।

এদিকে টিম অপারেশন্স ম্যানেজার পদে এসেছে পরিবর্তন। নাফিস ইকবালের বদলে মিডিয়া ম্যানেজারের পাশাপাশি টিম অপারেশন্স ম্যানেজারের যৌথ দায়িত্ব সামলাবেন রাবিদ ইমাম। তবে ভেতরের খবর, জাতীয় দল নিউজিল্যান্ডে ত্রিদেশীয় আসর খেলতে যাচ্ছে কোন নির্বাচক ছাড়াই।

আগে শোনা গিয়েছিল প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু আর ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটি চেয়ারম্যান জালাল ইউনুসও ৩০ সেপ্টেম্বর রাতে জাতীয় দলের সঙ্গে নিউজিল্যান্ড যাবেন। কিন্তু শেষ খবর, তারা দু’জন নিউজিল্যান্ড যাচ্ছেন না।

নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব আল হাসান নেই। বোঝাই যাচ্ছে টেকনিক্যাল অ্যাডভাইজার শ্রীধরন শ্রীরামই একাদশ সাজাচ্ছেন। সম্ভাব্য রূপরেখা তৈরি করে দিচ্ছেন। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে বিশ্বকাপের আগে নিউজিল্যান্ডে পাকিস্তান আর নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে দুটি করে (ডাবল হেডার টুর্নামেন্ট) ৪টি ম্যাচ।

সেখানেই বোঝা যাবে ক্রিকেটারদের কার কী অবস্থা? টেকনিক্যাল অ্যাডভাইজার, টিম ডিরেক্টরের সঙ্গে প্রধান নির্বাচক বা অন্তত একজন নির্বাচক থাকলে দল সাজানোর কাজটি আরও ভালো হতো। একটা ইউনিট হিসেবে তারা করণীয় স্থির করতে পারতেন।

নির্বাচক না থাকায় টেকনিক্যাল অ্যাডভাইজার শ্রীরামের একার মতোই প্রাধান্য পাবে বা পাচ্ছে। এ ভারতীয় নিজের মতো করেই হয়তো লক্ষ্য ও পরিকল্পনা আঁটার পাশাপাশি কম্বিনেশন ঠিক করবেন। একাদশ সাজাবেন। ব্যাটিং অর্ডারও ঠিক করবেন। সেখানে মিনহাজুল আবেদিন নান্নুর অভিজ্ঞতা কাজে দিত। কিন্তু জানা গেছে বহর চূড়ান্ত। নিউজিল্যান্ডে থাকছেন না কোনো নির্বাচক।

এদিকে ৩০ সেপ্টেম্বর নিউজিল্যান্ড যাত্রা করা টিম বাংলাদেশের প্রথম গন্তব্য ক্রাইস্টচার্চ। ৭ অক্টোবর সেখানেই পাকিস্তানের সঙ্গে প্রথম ম্যাচ সাকিব বাহিনীর। দ্বিতীয় খেলা ৯ অক্টোবর নিউজিল্যান্ডের সাথে। ফিরতি পর্বে পরপর দুদিন খেলতে হবে টাইগারদের। প্রথমে ১২ অক্টোবর স্বাগতিক কিউইদের বিপক্ষে। পরদিন পাকিস্তানের সাথে। পরের ম্যাচ দুটিও ক্রাইস্টচার্চে।