ArabicBengaliEnglishHindi

র‌্যাব কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রতারণা, যুবক গ্রেফতার


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১৪, ২০২২, ৭:৫০ অপরাহ্ণ / ৩৪
র‌্যাব কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রতারণা, যুবক গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক:-   র‌্যাবের সিনিয়র অফিসার পরিচয়ে প্রতারণার অভিযোগে মো. আমান উল্লাহ ওরফে মানিক (২৯) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। মঙ্গলবার (১৩ ডিসেম্বর) বিকেলে চট্টগ্রামের ভুজপুর থানার সদর ইউনিয়নের পাগলীছড়ি কাজীর টিলা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার আমান উল্লাহ মানিক ভুজপুর থানার পশ্চিম সিংহরিয়া গ্রামের মৃত আবুল কালামের ছেলে। এর আগেও তার বিরুদ্ধে নগরীর চান্দগাঁও থানায় মানব পাচার আইনের মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব। বুধবার সকালে তাকে কোতোয়ালি থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন র‌্যাব-৭ এর জ্যেষ্ঠ সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নূরুল আবছার।

তিনি জানান, ভিকটিমের ৬ বছর বয়সী একটি সন্তান রয়েছে। পারিবারিক কলহের কারণে তার স্বামী মো. ইলিয়াস তাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতেন। এ ঘটনায় ভিকটিম স্বামীর বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা করেন। পরে গত ১২ সেপ্টেম্বর ওই মামলার অগ্রগতি জানতে আদালতে গেলে আমান উল্লাহর সঙ্গে ভিকটিমের পরিচয় হয়। এসময় আমান উল্লাহ নিজেকে র‌্যাবের সিনিয়র অফিসার পরিচয় দেন। তিনি ভিকটিমের স্বামীর বিরুদ্ধে হওয়া মামলা তদন্ত করবেন এবং তার স্বামীর নামে ওয়ারেন্ট বের করে গ্রেফতারের ব্যবস্থা করবেন বলে তাকে জানান। এজন্য ভিকটিমের কাছ থেকে এক লাখ টাকা দাবি করেন। পরে ভিকটিম তাকে সাড়ে ৩৭ হাজার টাকা দেন।

এরপর ভিকটিম তার স্বামীকে গ্রেফতারের বিষয়ে জানতে চাইলে প্রতারক আমান আরও ২০ হাজার টাক দাবি করেন। ২০ হাজার টাকা না দিলে উল্টো ভিকটিমকেই গ্রেফতার করে নিয়ে যাবেন বলে ভয়ভীতি দেখান। এরপর ভিকটিম বিষয়টি তার আত্মীয়-স্বজনদের জানালে তারা র‌্যাব অফিসে যোগাযোগের পরামর্শ দেন। এরপর ভিকটিম র‌্যাব-৭ এ একটি লিখিত অভিযোগ দেন।

মো. নূরুল আবছার আরও জানান, ভিকটিমের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গোয়েন্দা নজরদারি ও তথ্য প্রযুক্তির সহায়তা আসামিকে শনাক্ত করে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে ৩০ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি ওই নারীর সঙ্গে প্রতারণার বিষয়টি স্বীকার করেছেন বলেও জানান র‌্যাবের এ কর্মকর্তা।

%d bloggers like this: