ArabicBengaliEnglishHindi

মিছিলের নগরী পরিণত রংপুর


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ২৯, ২০২২, ৫:১৫ অপরাহ্ণ /
মিছিলের নগরী পরিণত রংপুর

নিজস্ব প্রতিনিধি:- রংপুর :- রংপুরে বিএনপির সমাবেশকে কেন্দ্র করে দলটির নেতাকর্মীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা লক্ষ্য করা গেছে। ভোর থেকে শহর ও জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে লোকজন মিছিল নিয়ে সমাবেশস্থলে মিলিত হচ্ছেন। আশপাশের জেলার লোকজন আগে থেকেই সমাবেশস্থলে এসেছেন, অনেকে গামছা-মাদুর বিছিয়ে মাঠেই রাতযাপন করেছেন।
বাস ও গণপরিবহণ বন্ধ থাকায় অনেকে হেঁটে দলবল নিয়ে সমাবেশে আসছেন। অনেকে আসছেন ব্যাটারিচালিত অটোরিকশায় চেপে। রংপুর শহরে প্রবেশের সব পথ দিয়েই শনিবার সকাল থেকে মিছিল নিয়ে সমাবেশস্থলের দিকে ছুটতে দেখা গেছে নেতাকর্মীদের। সবমিলিয়ে মিছিলের নগরীতে পরিণত হয়েছে রংপুর।

রংপুরে বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশের আগে শুক্রবার থেকে দুদিনের জন্য পরিবহণ ধর্মঘটের ডাক দেয় জেলা মোটর মালিক সমিতি। এ কারণে সাধারণ মানুষ দুর্ভোগে পড়লেও বিএনপির কর্মীরা দলেবলে নানা উপায়ে সমাবেশস্থলে আসেন। অনেকে অভিযোগ করেছেন, তাদের আসার পথে বাধা দেওয়া হয়েছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, পরিবহণ ধর্মঘট উপক্ষো করে সমাবেশে যোগ দিতে এসেছেন নেতা-কর্মীরা। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কালেক্টরেট ঈদগাহ মাঠ বিভিন্ন স্লোগানে মুখর হয়ে উঠছে। দলীয় প্রতীক ধানের শীষ ছাড়াও ব্যানার, পোস্টার, ফেস্টুন নিয়ে আসা নেতা-কর্মীরা এখন সমাবেশ শুরুর অপেক্ষা করছেন।
রংপুর মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক সামসুজ্জামান বলেন, এখনো কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর শোনা যায়নি। ভোর থেকে পুরো বিভাগের লোকজন আসতে শুরু করেছে। সব মিছিলই ছিল শান্তিপূর্ণ। শুক্রবার রাতেও বিভিন্ন এলাকার নেতা-কর্মীরা এসেছেন।

রংপুর মহানগর বিএনপির নেতারা বলছেন, দুপুর ১২টার আগেই সমাবেশস্থল কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যাবে। ইতোমধ্যে সভামঞ্চসহ আশপাশে মাইক লাগানোর কাজ শেষ হয়েছে। মিছিল নিয়ে আসার পথে নেতা-কর্মীদের বাধা দেওয়া হচ্ছে বলেও দাবি তাদের।

নিত্যপণ্য ও জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি এবং বিভিন্ন স্থানে গুলিতে দলের নেতা-কর্মী নিহত হওয়ার প্রতিবাদসহ বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে দেশব্যাপী বিভাগীয় শহরে গণসমাবেশ করছে বিএনপি। এরই ধারাবাহিকতায় আজ শনিবার রংপুরে তাদের চতুর্থ বিভাগীয় গণসমাবেশ হবে।
দুপুর ২টায় রংপুরের ঐতিহাসিক কালেক্টরেট ঈদগাহ মাঠে বিএনপির গণসমাবেশ শুরু হবে। সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। প্রধান বক্তা হিসেবে থাকবেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। এছাড়া বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখবেন স্থায়ী কমিটির সদস্য বেগম সেলিমা রহমান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু।

গণসমাবেশে যোগ দিতে ইতোমধ্যে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এ জেড এম জাহিদ, যুগ্ম মহাসচিব হারুন উর রশিদ, রংপুর বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও সমাবেশের প্রধান সমন্বয়কারী আসাদুল হাবিব (দুলু), সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল খালেক, স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় সভাপতি এস এম জিলানী, কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম (বাবুল), ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি কাজী রওনাকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক সাইফ মোহাম্মদ জুয়েলসহ প্রমুখ রংপুরে এসে পৌঁছেছেন।

%d bloggers like this: