ArabicBengaliEnglishHindi

বাংলাবান্ধা- ফুলবাড়ি সিমান্তে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে বিজিবি-বিএসএফ এর যৌথ রিট্রিট


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১৭, ২০২২, ৭:২৬ অপরাহ্ণ / ১৮
বাংলাবান্ধা- ফুলবাড়ি সিমান্তে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে বিজিবি-বিএসএফ এর যৌথ রিট্রিট

মোঃ মোমিন ইসলাম সরকার পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধি। শুক্রবার (১৬ ডিসেম্বর) পঞ্চগড়ের বাংলাবান্ধা সিমান্তে বাংলাদেশ সিমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডারগার্ড বাংলাদেশ ব্যাটালিয়ন (১৮ বিজিবি)’র সার্বিক ব্যাবস্থাপনায় বাংলাবান্ধা আইসিপি এবং ১৭৬ ব্যাটালিয়ন বিএসএফ এর অধীনস্থ ফুলবাড়ি আইসিপির মধ্যে বাংলাদেশের মহান বিজয় দিবসের ৫১ তম বার্ষিকী উদযাপনকে স্মরণীয় করে রাখার লক্ষ্যে বিজিবি-বিএসএফ যৌথ রিট্রিট প্যারেড আয়োজন করা হয়।

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে বাংলাবান্ধা-ফুলবাড়ি সিমান্তে বাংলাদেশ ও ভারতের সিমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ ও বিজিবি’র মধ্যে যৌথ রিট্রিট প্যারেড অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে রিজিয়ন কমান্ডার (অতিরিক্ত মহাপরিচালক), বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, উত্তর পশ্চিম রিজিয়ন, রংপুর, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ বি এম নওরোজ তাহসান, বিএসপি, পিএসসি এবং আইজি বিএসএফ, নর্থ বেঙ্গল ফ্রন্টিয়ার, শ্রী অজয় সিং উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে বিজিবি এর কর্ণেল মোঃ সোহরাব হোসেন, পিএসসি, সেক্টর কমান্ডার, সেক্টর সদর দপ্তর, ঠাকুরগাঁও লেঃ কর্ণেল সৈয়দ সালাহ উদ্দিন নয়ন, পিএসসি, পরিচালক অপারেশন, রংপুর রিজিয়ন; লেঃ কর্ণেল মোঃ মাহফুজুল হক, পদাতিক, অধিনায়ক, পঞ্চগড় ব্যাটালিয়ন (১৮ বিজিবি); মেজর মোঃ রাহুল আসাদ, ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক, নীলফামারী ব্যাটালিয়ন। (৫৬ বিজিবি); জনাব মোঃ জহুরুল ইসলাম, জেলা প্রশাসক, পঞ্চগড়, জনাব এস, এম, সিরাজুল হুদা, পিপিএম, পুলিশ সুপার, এবং বিএসএফ এর পক্ষে শ্রী শৈলেশ কুমার, কমান্ড্যান্ট, ভারপ্রাপ্ত ডিআইজি, শিলিগুড়ি সেক্টর,এম.আর মজুমদার, ডিআইজি, কিষাণগঞ্জ সেক্টর: এস.এস সিরোহী, কমান্ড্যান্ট, ১৭৬ ব্যাটালিয়ন বিএসএফ এবং বিজিবি-বিএসএফ এর বিভিন্ন পর্যায়ের

কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে দুই দেশের সরকারী ও বেসরকারী পর্যায়ের কর্মকর্তাগণ, স্থানীয় রাজনৈতিক ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সদস্যগণ এবং বিভিন্ন স্থান হতে আগত পর্যটকগণ উপস্থিত ছিলেন। অতিথিদের আগমনের পর ভ্রাতৃত্বের সেতু বন্ধনের অংশ হিসেবে বিজিবি-বিএসএফ প্যারেড কন্টিনজেন্ট চমকপ্রদ ও মনোমুগ্ধকর প্যারেড প্রদর্শন করেন। প্যারেড শেষে প্রধান অতিথি উত্তর-পশ্চিম রিজিয়ন, রংপুর ও আইজি বিএসএফ, নর্থ বেঙ্গল ফ্রন্টিয়ার বিজিবি ও বিএসএফ কন্টিজেন্টের সাথে ফটোশেসনে অংশগ্রহণ করেন। অতঃপর বাংলাদেশের মহান বিজয় দিবসকে স্মরণ করে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে ভারতের অবদান উল্লেখ করে রিজিয়ন কমান্ডার বিজিবি বক্তব্য প্রদান করেন।

এ ধরণের অনুষ্ঠান দু’দেশের সম্পর্ক উন্নয়ন ও মানুষকে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করবে বলে তিনি অভিমত ব্যক্ত করেন। এই মহতী অনুষ্ঠানে উপস্থিত হতে পেরে আইজি বিএসএফ বিজিবিকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন পূর্বক দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে বক্তব্য প্রদান করেন। বক্তাগণ তাদের বক্তব্যে এই স্মরণীয় দিনটিকে আরও গৌরবান্বিত করার লক্ষ্যে দুই দেশের বন্ধুত্বের এই নিদর্শন যৌথ রিট্রিট প্যারেডের আয়োজনকে সাধুবাদ জানান। পরিশেষে বিজিবি-বিএসএফ ঐতিহাসিক জয়েন্ট রিট্রিট সেরিমনিকে স্মরণীয় করে রাখার জন্য স্মারকচিহ্ন (Mementos) বিনিময়ের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের পরিসমাপ্তি ঘটে।

%d bloggers like this: