ArabicBengaliEnglishHindi

তথ্যপ্রযুক্তির প্রশিক্ষণ, আছে চাকরির সুযোগ


প্রকাশের সময় : জুন ১১, ২০২২, ৫:০১ পূর্বাহ্ণ / ১৩২
তথ্যপ্রযুক্তির প্রশিক্ষণ, আছে চাকরির সুযোগ

শিক্ষিত তরুণ-তরুণীদের জন্য বৃত্তিসহ তথ্যপ্রযুক্তি প্রশিক্ষণ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক-বাংলাদেশ ইসলামিক সলিডারিটি এডুকেশনাল ওয়াক্ফ (আইডিবি-বিআইএসইডব্লিউ)। প্রতিষ্ঠান দুটি তাদের এক বছর মেয়াদি আইটি স্কলারশিপ ডিপ্লোমা কোর্সের জন্য ভর্তির বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে। আবেদন করা যাবে আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত। এই কোর্সে প্রশিক্ষণ নেওয়ার জন্য আবেদনকারীকে কোনো টাকা দিতে হবে না। প্রশিক্ষণের খরচ ও বই মিলবে ফ্রি। এ ছাড়া প্রশিক্ষণ শেষে শিক্ষার্থীদের চাকরির জন্য নানা উদ্যোগ নিয়ে থাকে তারা।

আইডিবি-বিআইএসইডব্লিউ বৃত্তি

বাংলাদেশ সরকার ও ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের যৌথ উদ্যোগে যাত্রা শুরু আইডিবি-বিআইএসইডব্লিউর। তাদের একটি শিক্ষা প্রকল্প আইডিবি-বিআইএসইডব্লিউ আইটি বৃত্তি প্রকল্প। ২০০৩ সাল থেকে বাংলাদেশের মুসলিম শিক্ষার্থীদের তথ্যপ্রযুক্তির ক্ষেত্রে এক বছর মেয়াদি প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছে তারা।

যাঁরা আবেদন করতে পারবেন

  • স্নাতক, ফাজিল, মাস্টার্স ও কামিল পাস প্রার্থী।
  • এক বছর মেয়াদি স্নাতকোত্তরে অধ্যয়নরত বা দুই বছর মেয়াদি স্নাতকোত্তর/ কামিলপড়ুয়ারা আবেদন করতে পারবেন।
  • কম্পিউটার, টেলিকমিউনিকেশন, ইলেকট্রনিকস, সিভিল, আর্কিটেকচার, সার্ভে ও কন্সট্রাকশন বিষয়ে ডিপ্লোমা প্রকৌশলীরা আবেদন করতে পারবেন।
  • মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় জিপিএ–২.০০ থাকতে হবে।
  • মেডিকেল, ইঞ্জিনিয়ারিং, কৃষি ও কম্পিউটারে স্নাতক প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন না।
  • চাকরিজীবীদের আবেদনের সুযোগ নেই।
  • প্রার্থীর বয়স সর্বোচ্চ ৩০ বছর হতে হবে।
  • কম্পিউটার ব্যবহারের অভিজ্ঞতা বা দক্ষতা না থাকলেও আবেদন করা যাবে।

শুধু অনলাইনে আবেদন করা যাবে। অনলাইনে আবেদনের জন্য এই ওয়েবসাইটে যেতে হবে। আবেদনকারীকে বিকাশের মাধ্যমে ওয়েবসাইটে উল্লিখিত নির্দেশনা অনুসারে আবেদন ফি ১০০ টাকা জমা দিতে হবে।

কোন কোন বিষয়ে প্রশিক্ষণ
আইডিবি-বিআইএসইডব্লিউ আইটি বৃত্তি প্রকল্পে মোট ১০টি বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

স্নাতক বা ফাজিল পাস ছাত্রছাত্রীদের জন্য কোর্স: ডেটাবেজ ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট; গ্রাফিকস, অ্যানিমেশন অ্যান্ড ভিডিও এডিটিং; এন্টারপ্রাইজ সিস্টেমস অ্যানালাইসিস অ্যান্ড ডিজাইন– জেইই; এন্টারপ্রাইজ সিস্টেমস অ্যানালাইসিস অ্যান্ড ডিজাইন সি; নেটওয়ার্কিং টেকনোলজিস ও ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট উইথ পিএইচপি অ্যান্ড ফ্রেমওয়ার্কস।

বৃত্তি নিয়ে তথ্যপ্রযুক্তির প্রশিক্ষণ, আছে চাকরির সুযোগ

ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের জন্য কোর্স: আর্কিটেকচারাল অ্যান্ড সিভিল ক্যাড; নেটওয়ার্ক সিস্টেম অ্যাডমিনিস্ট্রেটর; গ্রাফিকস, ভিডিও এডিটিং অ্যান্ড মোশন গ্রাফিকস ও ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট (প্রফেশনাল ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলমেন্ট ইউজিং পিএইচপি, প্রফেশনাল ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলমেন্ট ইউজিং এএসপি ডট নেট ও ক্লাউড কম্পিউটিং ইউজিং ওরাকল অ্যাপ্লিকেশন এক্সপ্রেস)।

আর্থিক সুবিধা
কোর্সে ভর্তির পর প্রশিক্ষাণার্থীর সব ধরনের খরচ—প্রশিক্ষণ ফি, বই ও পরীক্ষার ফি প্রতিষ্ঠান বহন করে। জনপ্রতি প্রশিক্ষণের খরচ প্রায় দুই লাখ টাকা, যা সম্পূর্ণভাবে প্রতিষ্ঠান বহন করে। অনলাইন ভেন্ডর সার্টিফিকেশন পরীক্ষার ফিও প্রতিষ্ঠান দিয়ে থাকে।

প্রার্থী নির্বাচন প্রক্রিয়া
লিখিত পরীক্ষা হয় ১০০ নম্বরে। লিখিত পরীক্ষায় বাংলা, গণিত ও ইংরেজির সাধারণ দক্ষতা যাচাই করা হয়। লিখিত পরীক্ষায় পাস করলে মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হয়। প্রার্থীর তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ে পড়ার আগ্রহ আছে কি না, সে বিষয়টি মৌখিক পরীক্ষায় দেখা হয়। লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা প্রতিষ্ঠানটির ঢাকা ও চট্টগ্রাম সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়।

বৃত্তি নিয়ে তথ্যপ্রযুক্তির প্রশিক্ষণ, আছে চাকরির সুযোগ

প্রশিক্ষণ
ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগরীতে মনোনীত ট্রেনিং সেন্টারগুলোতে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। প্রশিক্ষণের সময় সকাল ৯টা থেকে বেলা ১টা অথবা বেলা ৩টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত। সপ্তাহে ছয় দিন ক্লাস। আইটি স্কলারশিপ প্রোগ্রামের অধীন প্রশিক্ষণ টিএসপিতে সরাসরি ক্লাসের মাধ্যমে অথবা অনলাইন ক্লাসের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হতে পারে। বর্তমানে কেবল ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট, নেটওয়ার্কিং, গ্রাফিকস ও মাল্টিমিডিয়ার ছয় মাসের কোর্সগুলো চার বছরের ডিপ্লোমা প্রার্থীদের জন্য অনলাইনে করানো হচ্ছে।

চাকরির সুবিধা
প্রশিক্ষণ শেষে কৃতকার্য শিক্ষার্থীদের কর্মসংস্থানের জন্য আইডিবি-বিআইএসইডব্লিউর প্লেসমেন্ট সেল সক্রিয় ভূমিকা পালন করে।