ArabicBengaliEnglishHindi

জোরপূর্বক ভাবে  জমি জবর দখলের অভিযোগ। 


প্রকাশের সময় : আগস্ট ৬, ২০২২, ২:১৭ অপরাহ্ণ / ৭৮
জোরপূর্বক ভাবে  জমি জবর দখলের অভিযোগ। 
মীর আশিকুর রহমান , টাঙ্গাইল : টাঙ্গাইল  সখিপুর জোরপূর্বক  ভাবে    মালিকানা   জমি  দাপট ভয় ভীতি দেখিয়ে মালিককে দখল থেকে  উচ্ছেদ । সখিপুর পৌরসভার  ৯নং ওয়াডের প্রতিমা বংকী
১৯৮৮ ইং সালে জমি বিক্রি  করেন, মোঃ সুজাত আলীর  পিতা মৃত্যু  মোঃ ফজর আলী,   সুজাত আলী বিক্রি  করেন
মীর আফাজ উদ্দিনের নিকট
মীর আফাস উদ্দিন, সুজাত আলীর নিকট  হইতে  এত তাং৩০/১/১৯৮৮ ইং  জমিটি ক্রয় করেন , দাগ নং ৭১৯   হইতে জমি ক্রয় করেন ৬০ শতাংশ জমি এবং  আরো একটি জমি ক্রয় করেন ২৪/২/১৯৭৭ইং তে,৪৪ শতাশং দাগ নং ৯৭৭, হইতে ওই আফাজ উদ্দিন মোট জমি ক্রয় করেন  একশ চার শতাংশ  জমি।
উক্ত  জমিটি এখন বেদখল  নামের  তালিকা ,১নং হায়দার  আলী (৪৫),পিতা  মৃত্যু  আনছের আলী
২নং শফিক  (৩২)পিতা হায়দার  আলী, ৩নং মোঃ জোরন আলী (৪০)পিতা মৃত্যু  আনছের আলী
৪নং হকু মিয়া (৬৫) পিতা মৃত্যু  মাঝম আলী।
৫নং ফজলু মিয়া (৪২)পিতা  মৃত্যু  খালোই মিয়া
৬নং রবিন (২৭) পিতা ফজলু মিয়া,
এরা সবাই  মিলে জমি বে দখল দিয়ে রেখেছে।
মীর আফাজ উদ্দিনের ওয়ারিশ গনকে বে দখল দিয়ে আসছে।
ঐ জমি নিয়ে কয়েক  দফায়  সালিশ দরবার  করেইও  কোন লাভ হয়নি, দরবার শালিষে উপস্থিত  ছিলেন,  বিল্লাল ডিলার  সাহেব ,   এবং সখিপুরের আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি জনাব কুতুবউদ্দিন আহমেদ,  এলাকায়  সোনা মিয়া পির সাহেব,গন‍্যমান‍্য  ও উওম  ব্যাক্তীবর্গ সহ স্থানীয় খোরশেদ  কমিশনার সখিপুর পৌরসভার ৯নং ওয়াডের,ও মালেক মিয়া আরো লোকজন উপস্থিত  ছিলেন
বিল্লাল ডিলার  তিনি   জমির  দায়িত্ব নিয়ে  কোন ফলপ্রসূ
সমাধান  দিতে  পারেনি।জবর দখল  কারীরা জমির  মালিকানাদের হুমকি আসে  বরাবর ও বলে বেড়ায় ।
এই জমিতে আসলে  জীবন  শেষ করে ফেলবো এই বলে তারা লাঠি সোঠা নিয়ে  দলবল বেধে  লোকজন নিয়ে  মারতে আসে।
এই ভাবে  ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছে।
দীর্ঘ দিন  ধরে  দলবল সহ এসে বলে এজমিতে আসলে  জমির  মাটির মধ্যে  পূঁতে ফেলবো।
উক্ত জমিটা কয়েক বার পরিমাফ  করেন শুকু আমিন ও রাজিব আমিন, রফিক  আমিনও,
প্রকৃত জমির মালিকদের দখল  বুঝে  দিচ্ছে না  জোরপূর্বক  ওই তালিকার সুবিধা ভোগকারীরা।
যদি ও জমিপরিমাপ করে প্রতিবেদন করে দেন জমির মালিক কে মীর আফাজ উদ্দিনকে।
অ্যাটাচমেন্ট এরিয়া