ঘোষিত তফসিলে ভোটগ্রহণের তারিখ পিছিয়ে দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি কাছেঃ বেগম রওশন এরশাদ


প্রকাশের সময় : নভেম্বর ১৯, ২০২৩, ৩:০৬ অপরাহ্ণ / ৪৬
ঘোষিত তফসিলে ভোটগ্রহণের তারিখ পিছিয়ে দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি কাছেঃ বেগম রওশন এরশাদ

আইনের চোখ ডেক্সঃ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণের যে তারিখ নির্বাচন কমিশন নির্ধারণ করেছে, তা পিছিয়ে দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিনের কাছে সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্ঠপোষক বেগম রওশন এরশা। তিনি নির্বাচনের আগে রাষ্ট্রের অভিভাবক হিসেবে রাষ্ট্রপতিকে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে আলোচনার উদ্যোগ গ্রহণেরও অনুরোধ জানান। জাতীয় পার্টি ও বঙ্গভবন সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, রবিবার দুপুরে বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করে রওশন এরশাদ ভোট পেছানোর দাবি জানান। কারণ হিসেবে রাষ্ট্রপতিকে তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন ৭ জানুয়ারি ভোটগ্রহণের দিন ঠিক করে তফসিল ঘোষণা করেছে। কিন্তু এত অল্প সময়ের মধ্যে নির্বাচনি প্রস্তুতি নেওয়া কঠিন। ফলে ঘোষিত তফসিলের সময় যথেষ্ট নয়।’

রওশন এরশাদ রাষ্ট্রপতিকে আরও বলেন, ‘ইসির তফসিল অনুযায়ী ৩০ নভেম্বর মনোনয়ন দাখিলের শেষ দিন। কিন্তু ওই দিনই আয়কর রিটার্ন দাখিলেও শেষ দিন। আর প্রার্থীদের মনোনয়নপত্রের সঙ্গে আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার বিধান রয়েছে। সেক্ষেত্রে মনোনয়নপত্রের সঙ্গে আয়কর রিটার্ন জমা দিতে সমস্যায় পড়তে হবে প্রার্থীদের। এ বিষয়টি বিবেচনা করে নির্বাচনের তারিখ পিছিয়ে দেওয়ার অনুরোধ রাষ্ট্রপতিকে জানান রওশন এরশাদ। ঘোষিত তফসিলকে স্বাগত জানিয়ে রওশন রাষ্ট্রপতির কাছে আরও জানান, তার দল জাতীয় পার্টি নির্বাচনমুখী দল। এবারও তারা নির্বাচনি প্রস্তুতি নিয়েছেন।

রবিবার দুপুর ১২টায় ৪ সদস্যের প্রতিনিধিদল নিয়ে বঙ্গভবনে যান রওশন এরশাদ। তার সঙ্গে ছিলেন সংসদের বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ মশিউর রহমান রাঙ্গা, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ রওশন আরা মান্নান, এরশাদপুত্র রাহগির আলমাহি সাদ এরশাদ ও বিরোধী দলীয় নেতার মুখপাত্র কাজী মো. মামুনুর রশিদ।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণের যে তারিখ নির্বাচন কমিশন নির্ধারণ করেছে, তা পিছিয়ে দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিনের কাছে সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্ঠপোষক বেগম রওশন এরশাদ। তিনি নির্বাচনের আগে রাষ্ট্রের অভিভাবক হিসেবে রাষ্ট্রপতিকে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে আলোচনার উদ্যোগ গ্রহণেরও অনুরোধ জানান। জাতীয় পার্টি ও বঙ্গভবন সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, রবিবার দুপুরে বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করে রওশন এরশাদ ভোট পেছানোর দাবি জানান। কারণ হিসেবে রাষ্ট্রপতিকে তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন ৭ জানুয়ারি ভোটগ্রহণের দিন ঠিক করে তফসিল ঘোষণা করেছে। কিন্তু এত অল্প সময়ের মধ্যে নির্বাচনি প্রস্তুতি নেওয়া কঠিন। ফলে ঘোষিত তফসিলের সময় যথেষ্ট নয়।’

রওশন এরশাদ রাষ্ট্রপতিকে আরও বলেন, ‘ইসির তফসিল অনুযায়ী ৩০ নভেম্বর মনোনয়ন দাখিলের শেষ দিন। কিন্তু ওই দিনই আয়কর রিটার্ন দাখিলেও শেষ দিন। আর প্রার্থীদের মনোনয়নপত্রের সঙ্গে আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার বিধান রয়েছে। সেক্ষেত্রে মনোনয়নপত্রের সঙ্গে আয়কর রিটার্ন জমা দিতে সমস্যায় পড়তে হবে প্রার্থীদের। এ বিষয়টি বিবেচনা করে নির্বাচনের তারিখ পিছিয়ে দেওয়ার অনুরোধ রাষ্ট্রপতিকে জানান রওশন এরশাদ। ঘোষিত তফসিলকে স্বাগত জানিয়ে রওশন রাষ্ট্রপতির কাছে আরও জানান, তার দল জাতীয় পার্টি নির্বাচনমুখী দল। এবারও তারা নির্বাচনি প্রস্তুতি নিয়েছেন।

রবিবার দুপুর ১২টায় ৪ সদস্যের প্রতিনিধিদল নিয়ে বঙ্গভবনে যান রওশন এরশাদ। তার সঙ্গে ছিলেন সংসদের বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ মশিউর রহমান রাঙ্গা, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ রওশন আরা মান্নান, এরশাদপুত্র রাহগির আলমাহি সাদ এরশাদ ও বিরোধী দলীয় নেতার মুখপাত্র কাজী মো. মামুনুর রশিদ।