কিছুই নাই,সব ছারখার হয়ে গেছে


প্রকাশের সময় : মার্চ ১১, ২০২৪, ৫:২২ অপরাহ্ণ / ২৫
কিছুই নাই,সব ছারখার হয়ে গেছে

ভেড়ামারা প্রতিনিধিঃ মেঠোপথে দাঁড়িয়ে কাঁদছিলেন ভানু খাতুন। কথা বললে জানালেন, স্বামী হামিদুল ইসলামের সঙ্গে মিলে মাঠে তাঁদের ৩ বিঘা জমিতে পান চাষ করেছিলেন। গতকাল রোববার সেই পানের বরজে আগুন লেগে সব পুড়ে গেছে। পরিবারের একমাত্র আয় এই পান বরজ থেকে। এর ওপরেই সংসারের সব। এক ছেলে ও এক মেয়ে, তাঁদের বিয়ে হয়ে গেছে। তাঁকে সান্ত্বনা দেওয়ার মতো কেউ নেই। কারণ, ভানুর মতো ওই এলাকার প্রায় সবার মাঠের বরজ আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

সংসার চালানোর প্রধান অর্থকারী ফসলের ক্ষতিতে কান্না থামছেই না কৃষকদের। সোমবার সকালে ভেড়ামারার মাধবপুর গ্রামের মাঠে।

কয়লার কালি হাতে খেতে পোড়া পান দেখছিলেন রেজাউল ইসলাম। তিনি বললেন, ‘কিছুই নাই, সমস্ত কিছু পুড়ে গেছে। এলাকার আর কিছুই নাই। এ বছর এই গ্রামের মানুষ কীভাবে চলবে, কেউ বলতে পারবে না। সব ছারখার হয়ে গেছে।’