কালিয়ায় টাকার বিনিময়ে ইউনিক আইডি পেল শিক্ষার্থীরা!


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ১৮, ২০২৩, ৫:২৫ অপরাহ্ণ / ৬৭
কালিয়ায় টাকার বিনিময়ে ইউনিক আইডি পেল শিক্ষার্থীরা!
মোঃ জিহাদুল ইসলামা, খুলনা ব্যুরো
নড়াইলের কালিয়া উপজেলার কলাবাড়ীয়া  উচ্চ বিদ্যালয়ে ইউনিক আইডি তৈরিতে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ৫০ টাকা করে আদায়ের অভিযোগ উঠেছে প্রধান শিক্ষক গনপতি মজুমদারের বিরুদ্ধে। সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষা করে  প্রায় ৬ শতাধিক শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে এ টাকা নিয়েছেন তিনি।
১৬ অক্টোবর (সোমবার)  ওই স্কুলে গেলে নাম প্রকাশ না করার স্বার্থে একাধিক অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা জানায়, সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে বিদ্যালয়ে  শিক্ষার্থীর কাছ থেকে ৫০ টাকা করে আদায় করেছেন প্রধান শিক্ষক।
জানা গেছে, স্ট্যাবলিশমেন্ট অব ইন্টিগ্রেটেড এডুকেশনাল ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (আইইআইএমএস) প্রকল্পের আওতায় ষষ্ঠ থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত সব শিক্ষার্থীর তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে। এতে প্রত্যেক শিক্ষার্থীর মৌলিক ও শিক্ষা সংক্রান্ত সব তথ্য থাকবে। শিক্ষার্থীর বয়স ১৮ বছর পূর্ণ হলে এই আইডি জাতীয় পরিচয়পত্রে (এনআইডি) রূপান্তরিত হবে। এক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা আদায়ের কোনো নিয়ম নেই।
এ বিষয়ে কলাবাড়ীয়া  উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গনপতি মজুমদার বলেন,  প্রায় ৩৪/৩৫ টা তথ্য লিপিবদ্ধ করতে বেশ কষ্ট হয়। তবে ৫০ টাকা করে নেওয়ার বিষয়টি  তিনি স্বীকার করেছেন।  টাকা নেওয়ার নিয়ম আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি এ বিষয়ে  নিউজ না করার অনুরোধ জানিয়ে টাকা দিয়ে ম্যানেজ করার চেষ্টা করেন।
এ বিষয়ে জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা শিক্ষা অফিসার মোঃ জাহাঙ্গীর আলম ভিডিও বক্তব্য দিতে রাজি হননি। তবে ইউনিক আইডিতে টাকা নেওয়ার কোন সুযোগ নেই। বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নিবেন বলে জানিয়েছেন।