ArabicBengaliEnglishHindi

“উত্তাল মার্চ”


প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ২০, ২০২২, ৭:৪৪ পূর্বাহ্ণ / ৪৭
“উত্তাল মার্চ”
  #কলমে -কবি মোঃ জাহাঙ্গীর আলম
উত্তাল মার্চ মাস, কখন কি জানি হয়, কারোর ছিলনা, কনো কিছু জানা,
চলছে নানান, পরিকল্পনা ওদের, কখন দেবে বুঝি হানা।
বাঙালির ইতিহাসে, মার্চ মাসের গুরুত্ব অপরিসীম,
পাক হানাদার বাহিনী জানতো? বাঙালির সাথে সকল কৌশল খাটাতে হতে হবে হিমশিম।
বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণ, এই মার্চের ৭ তারিখে হয়,
যে ভাষনে, গোটা জাতি খুঁজে পেয়েছিল এই বাংলার জয়,
বাঙালির হৃদয়ে গেঁথে দিতে চেয়েছিল, ওরা মৃত্যুর,,, মহা ভয়।
উত্তাল মার্চ মাস, ছিল উত্তেজনা ও ভয়ঙ্কর ডরে ভরপুর,
১৯৬৯ -ই বলেছিল কিছু একটা ঘটবে, কিন্তু তা কতদূর।
ওরা কাকে কখন মারবে, কখন কি করবে, যেন ভেসে আসছে,সেই পশ্চিমা সুর।
পহেলা মার্চ ১৯৭১-এ ইয়াহিয়া খান বেতারে অধিবেশন স্থগিত করলো,
বাঙালির বুঝতে বাকি রইল না, ওরা কি করতে চাচ্ছে আবারও?
মুহূর্তেই পূর্ববাংলার সকলেই আওয়াজ তুল্লো,,,,,,,,,, বীর বাঙালি অস্ত্র ধরো, বাংলাদেশ স্বাধীন করো।
মার্চের ৭ তারিখে রেসকোর্স ময়দানে রচিত হল মুক্তির মহাকাব্য,
মুহূর্তেই সে ভাষন ছড়িয়ে পড়লো গ্রামের পর গ্রাম,
বঙ্গবন্ধুর আগুনজ্বলা বজ্রকন্ঠে উচ্চারণ হল,
এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম,,,,,,,,, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম।
হঠাৎ ২৫শে মার্চের, কালরাত্রে নিরীহ ঘুমন্ত বাঙালির উপর চলে, পশ্চিমা হায়েনাদের প্রাণ ধ্বংসের ফাইট,
ওই হায়েনারা, এই ফাইটের নাম দিয়েছিল, অপারেশন সার্চলাইট।
এই মার্চের ২ তারিখে, বাংলাদেশে প্রথম পতাকা উত্তোলন হয়,
বাঙালি ওদের বুঝিয়ে দিয়েছিল সেদিন, কোন কালো শক্তির কাছে, আমরা মাথা নোয়াবার নয়।
কতকিছু লুকিয়ে ছিল এই মার্চ মাসের অন্তরায়,
অবশেষে সব বাঁধা ছাড়িয়ে, রক্তের নদী পেরিয়ে, বাংলার হলো জয়,
ভয় নাই, ওরে ভয় নাই, সাড়ে সাত কোটি মানুষ আজও কথা কয়।
০৫-০৩-২০২১

সাহিত্য বিভাগের আরো খবর

আরও খবর