ArabicBengaliEnglishHindi

আবারও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে হয়রানির মামলা ছয় সাংবাদিকের বিরুদ্ধে


প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২২, ১০:১৮ পূর্বাহ্ণ / ৩২
আবারও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে হয়রানির মামলা ছয় সাংবাদিকের বিরুদ্ধে

  নিজস্ব প্রতিবেদক, রাঙ্গামাটি:

এবার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ছয় সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন সাবেক সংসদ সদস্য ও রাঙ্গামাটি জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ফিরোজা বেগম চিনুর মেয়ে নাজনীন আনোয়ার।

গত বুধবার (১৩ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতে তিনি মামলাটি করেন। পরে ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ জহিরুল কবির মামলাটি আমলে নিয়ে আগামী ১৩ নভেম্বর পিবিআইকে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

মামলায় দৈনিক পার্বত্য চট্টগ্রাম ও পাহাড় টোয়েন্টিফোরডটকম সম্পাদক ফজলে এলাহী, ইন্ডিপেনডেন্ট টেলিভিশন প্রতিনিধি অনির্বাণ শাহরিয়ার, জাগো নিউজ প্রতিনিধি সাইফুল হাসান, দীপ্ত টিভির বিশেষ প্রতিনিধি বায়েজিদ আহমেদ, বণিক বার্তা প্রতিনিধি প্রান্ত রনি ও টিবিএসের খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি দিদারুল আলমের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়াও মামালায় অজ্ঞাতনামা আরও অনেককে আসামি করা হয়।

এজাহারে আরও উল্লেখ করা হয়, আসামিরাসহ অজ্ঞাতনামা আরও বেশে কয়েকজন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্টের কারণে বাদীনি ও তার মা (সাবেক এমপি ফিরোজা বেগম চিনু) সামাজিক ও রাজনৈতিকভাবে অপদস্থ হয়ে সামাজিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হন।

এর আগে পাহাড় টোয়েন্টিফোরডটকম ও দৈনিক পার্বত্য চট্টগ্রামে রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসনের ডিসি বাংলো পার্কের ‘পাইরেটস্’ রেস্টুরেন্ট নিয়ে প্রতিবেদন করায় সাংবাদিক ফজলে এলাহীর বিরুদ্ধে মামলা করেন নাজনীন আনোয়ার। ওই মামলায় গত ৭ জুন সন্ধ্যায় ফজলে এলাহীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরদিন রাঙ্গামাটির আদালতে অন্তর্বর্তীকালীন জামিন পান ফজলে এলাহী। এরপর ১৪ জুন চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালত থেকে স্থায়ী জামিন পান তিনি।

গ্রেফতারের ঘটনার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে সাংবাদিক ফজলে এলাহীর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহার ও জামিন দাবিতে সরব থাকার জের ধরেই এবার ফজলে এলাহীসহ আরও পাঁচ সাংবাদিকসহ অজ্ঞাতনামা আরও অনেককে আসামি করে মামলা করেছেন নাজনীন আনোয়ার।

এদিকে আবারও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দিয়ে হয়রানির প্রতিবাদ জানিয়েছেন কর্তব্যরত সাংবাদিকরা। প্রতিবাদ জানিয়েছেন রাঙ্গামাটি রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি সুশীল প্রসাদ চাকমা, সাধারণ সম্পাদক হেফাজত সবুজ; বান্দরবান প্রেস ইউনিটের সভাপতি আলাউদ্দীন শাহরিয়ার, রিপোটার্স ইউনিটির সভাপতি মংসানু মারমা, সাংবাদিক ইউনিয়নের আহবায়ক আল ফয়সাল বিকাশ; খাগড়াছড়ি প্রেস ক্লাবের সভাপতি জিতেন বড়ুয়া, সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের মোহাম্মদ, সাংবাদিক ইউনিয়ন সভাপতি প্রদীপ চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক সম্পাদক সৈকত দেওয়ান।